ঠাকুরগাঁওয়ে পাথর ঘাটা নদী রক্ষা ও  নদীটি দখল মূক্ত করার দাবীতে এলাকাবাসীর মানববন্ধন

 ঠাকুরগাঁও সদর উপজেলার গড়েয়া ইউনিয়নে ৫ সেপ্টেম্বর সকাল ১১টায় গড়েয়ার পাথর ঘাটা নদী রক্ষা ও  নদীটি দখল মূক্ত করার দাবীতে এলাকাবাসীর মানববন্ধন করেছে।
এলাকাবাসীর দাবি গড়েয়া ইউনিয়নের একমাত্র নদী হলো পাথর ঘাটা নদী। যাহা এলাকার জলাবদ্ধতা এবং বন্যার সময় বর্ষা মৌসুমে এই নদীটি পানি নিষ্কাসনের কাজে গুরুত্ব পূর্ণ ভূমিকা রাখতো, এবং গড়েয়া হাটের কোথাও আগুন লাগলে এই নদীর পানি দিয়ে ফায়ার সার্ভিস কর্মীরা আগুন নেভানোর কাজে ব্যবহার করতো।
বর্তমানে আলহাজ্ব রহিদুল ইসলাম,পিতাঃ মৃতঃ আবু তালেব, সাং- চোঙ্গাখাতা, থানা ও জেলাঃ ঠাকুরগাঁও। ও  আবু সামাদ, পিতাঃ মৃতঃ বছির  উদ্দিন, সাং- চোঙ্গা খাতা, থানা ও জেলা ঠাকুরগাঁও, মোস্তাফিজুর রহমান সহ কয়েক জন ভূমি দস্যু গণ পাথর ঘাটা নদীটি কিছু সরকারি  জায়গায় দখল করে বসতবাড়ী ও প্রায় ১৫/২০টি দোকান নির্মাণ করায় নদীটি সংকুচিত হয়ে নদীটির গতিধারা বদলে গিয়ে বর্তমানে  মরা  নদীতে পরিনত হয়েছে।
এলাকা বাসীর অভিযোগের প্রক্ষিতে কিছুদিন পূর্বে ঠাকুরগাঁও সহকারী ভূমি  কর্মকর্তা এসে জরিপ করে সরকারি নদীর জায়গায়  বের করে লাল ফ্লাগ দিয়ে চিহ্নিত করেন। কিন্তু ভূমি দস্যু গণ ক্ষমতার প্রভাব খাটিয়ে সেই চিহ্নিত লাল ফ্লাগ গুলো তুলে দিয়ে মার্কেট ও বসত বাড়ি নির্মাণ করে। বর্তমানে নদীটি শুকিয়ে নালায় পরিনত হয়েছে। তাই এলাকা বাসির দাবী উক্ত পাথর ঘাটা নদীটি দখল মূক্ত করে পরিবেশের ভারসাম্য ও এলাকাবাসী কে জলাবদ্ধতা থেকে রক্ষার করার জোর দাবি জানান।
মানব বন্ধনে এলাকার সকল পেশা শ্রেনীর লোকজন উপস্থিত ছিলেন।