ডিমলা রিপোর্টার্স ইউনিটির সভাপতির বিরুদ্ধে অদক্ষতা ও স্বেচ্ছাচারিতার অভিযোগে অনাস্থা : এডহক কমিটি গঠন

নীলফামারীর ডিমলা উপজেলার রিপোর্টার্স ইউনিটির সভাপতি বাদশা সেকেন্দার ভুট্টু’র অনিয়ম, স্বেচ্ছাচারিতা ও অদক্ষতার অভিযোগ এনে সম্পাদকসহ সকল সদস্য অনাস্থা প্রস্তাব এনে সর্বসম্মতিক্রমে সিন্ধান্ত গৃহীত করেছেন। সভাপতির বিরুদ্ধে অনাস্থা প্রস্তাব আনেন ডিমলা রিপোর্টার্স ইউনিটির সম্পাদকসহ সকল সদস্যবৃন্দ।

অনাস্থা প্রস্তাব সূত্রে জানা যায়, বিভিন্ন অনিয়ম, স্বেচ্ছাচারিতা ও অদক্ষতার কারনে ২ অক্টোবর বুধবার সন্ধ্যায় ইউনিটির সকল সদস্যগণ ইউনিটির সম্পাদক জাহাঙ্গীর আলম রেজার সভাপতিত্বে এক জরুরী সভায় রেজুলেশনের মাধ্যমে এই অনাস্থা প্রস্তার আনা হয়। অত:পর গত ৩ অক্টোবর বৃহস্পতিবার অনাস্থা প্রস্তাবের রেজুলেশন বহিসহ অনিয়ম ও স্বেচ্ছাচারিতার যাবতীয় প্রমাণাদি নীলফামারী জেলা রিপোর্টার্স ইউনিটির ভারপ্রাপ্ত সভাপতি ও সম্পাদকের বরাবরেও দাখিল করলে তা সভাপতি ও সম্পাদক গ্রহণ করেন। এ সময় ভেঙ্গে যাওয়া কার্যনিবার্হী কমিটি গঠনের উদ্দেশ্যে এবং সুষ্ঠু নির্বাচন প্রক্রিয়ার মাধ্যমে কমিটি গঠনের জন্য আগামী ১৯ নভেম্বর পর্যন্ত তিন সদস্যের একটি আহবায়ক কমিটি গঠন করে তা জেলা কমিটি অনুমোদন করেন।

ডিমলা রিপোর্টার্স ইউনিটির সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক মোঃ মহিবুল ইসলাম মিলনকে আহবায়ক করে বাদশা সেকেন্দার ভুট্টু ও হাবিবুল হাসান হাবীবকে যুগ্ম-আহবায়ক করে এ কমিটি অনুমোদন করা হয়।

এ সময় নীলফামারী জেলা রিপোর্টার্স ইউনিটির সিনিয়র সদস্য আল ফারুক পারভেজ উজ্জ্বল, সদস্য আব্দুর রশিদ, সদস্য খাজা নেওয়াজ, হামিদার রহমান এবং ডিমলা রিপোর্টার্স ইউনিটির সাবেক সাধারণ সম্পাদক জাহাঙ্গীর রেজা,সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক মহিবুল ইসলাম মিলন, ক্যাশিয়ার নয়ন, সদস্য পাভেল, ফরিদুল, কুদ্দুস, শাহিনুর, লাজু, নুরনবী, মশিয়ারসহ আরো অনেকে উপস্থিত ছিলেন ।