নীলফামারীর কিশোরগঞ্জ থানা হাজতে কথিত গরু চোরের আত্মহত্যা

নীলফামারীর কিশোরগঞ্জ থানা হাজতে কথিত গরু চোর আব্দুল্লাহ আল মামুনের মৃত্যু হয়েছে। নিহত আব্দুল্লাহ আল মামুন কিশোরগঞ্জ সদর ইউনিয়নের যদুমনি এলাকার মৃত হুজুর আলীর ছেলে।

শনিবার (১০ আগস্ট) বিকেল সাড়ে চারটার দিকে হাজতের ভেন্টেলেটরের সাথে গলায় ফাঁস দিয়ে ঝুলে থাকা মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ।

এ খবর ছড়িয়ে পড়লে বিক্ষুব্ধ জনতা বিকেল ৫টা থেকে রাত আটটা পর্যন্ত থানা ঘেরাও করে রাখে। জনতা পিটিয়ে হত্যার অভিযোগ এনে ইট-পাটকেল নিক্ষেপ করে ভাংচুর করে থানা ভবনের বিভিন্ন জানালার গ্লাস।

তবে আব্দুল্লাহ আল মামুন একজন চোর বলে দাবী করেছেন পুলিশ সুপার। এ ঘটনা তদন্তে সৈয়দপুর সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার অশোক কুমার পালকে প্রধান করে এক সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়।

জানা যায়, দুপুরের দিকে এলাকাবাসী গরু চোর সন্দেহে সদর ইউনিয়নের তেলিপাড়া এলাকা থেকে আটক করে ইউপি সদস্য নারর্গিস আক্তারের বাসায় রেখে পরে দুপুরে জরুরী পুলিশের ডিউটি অফিসার জাহিদ হোসেন এর হাতে তুলে দেয়।

এ বিষয়ে একটি ইউডি মামালা হয়েছে ।