ডোমার পৌরসভা অফিসে দুদকের অভিযান

নীলফামারীর ডোমার পৌরসভা কাযার্লয়ে অভিযান পরিচালনা করেছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)রংপুর বিভাগীয় অঞ্চল। এ অভিযানের খবরে এলাকায় চাঞ্চ্যেলের সৃষ্টি হয়েছে ।

জানাযায়,মঙ্গল বার(১৭সেপ্টেম্বর) বেলা ১২ টা থেকে বিকাল ৪ টা পর্যন্ত দুর্নীতি দমন কমিশন ডোমার পৌরসভায় অভিযান চালায় । তারা মুলত গত অর্থ বছরের (২০১৭-২০১৮ ) গুরুত্বপূর্ন নগর অবকাঠামো প্রকল্পের খোজঁ খবর করেন। এ প্রকল্পের আওতায় ১/ মুচিপট্টি হতে চিকনমাটি মোড় সড়ক, ২/ মোক্তার হাজীর দোকান হতে তরুন কমিশনারের বাড়ী হয়ে সবুজপাড়া প্রশিকা মোড় পর্যন্ত সড়ক প্রকল্পের মোট বরাদ্দ ছিল ১ কোটি ৫০ লক্ষ টাকা।এ ছাড়াও মশক নিধনের ৭ লক্ষ টাকা। বরাদ্ধকৃত টাকা উত্তোলন করা হয়েছে।এসব দুদকের দৃষ্টিতে আসে এসব প্রকলপের কিছু কাগজপত্রের ফটোকপি নিয়ে তারা চলে যায় । এ ছাড়া মেয়র ও দুজন কমিশনার খুবই গোপনে কাজটি করেছে । গতকালও তাদের বাড়ী থেকে ফাইল নিয়ে এসে দুদককে কপি দেওয়া হয় ।অফিসে এসব ফাইল রাখার কথা থাকলেও অফিসে না রেখে কথিত কাউন্সিলরের বাসায় গোপনে ফাইলটি লুকিয়ে রাখে।

অফিসের কর্মকর্তা ও কর্মচারীরা এ প্রকল্পের ব্যাপারে প্রতিবেদককে বলেন এ বিষয়ে তারা কোন কিছু জানেনা। দুদক কর্মকর্তারা এ সব বিষয়ে ও তদন্ত করে দেখছে ।
এ ব্যাপারে ডোমার পৌরসভার প্রকৌশলী জোবায়দুল হক দুদকের অভিযানের সত্যতা স্বীকার করে জানান, তারা মুলত গত অর্থ বছরের (২০১৭-২০১৮ ) গুরুত্বপূর্ন নগর অবকাঠামো প্রকল্পের খোজঁ খবর নেয় । তিনি আরও বলেন এ প্রকল্পের আওতার বিষয়ে কোন কিছু জানার থাকলে মেয়রের কাছ থেকে অনুমতি নেন, তাহলে আপনাদের বিস্তারিত তথ্য দেওয়া যাবে।মেয়রের অনুমতি ছাড়া কোন তথ্য দেওয়া আমার পক্ষে সম্ভব নয়।