বিলুপ্ত ছিটমহলে প্রাথমিক বিদ্যালয় নির্মান করে শিক্ষক নিয়োগ বানিজ্য।

বাংলাদেশের সীমান্তবর্তী উপজেলা পাটগ্রাম, গনতন্ত্রের মানষ কন্যা বিশ্বের দীর্ঘ মেয়াদী ও বিশ্বের দ্বিতীয় সেরা প্রধানমন্ত্রী ভারতের সংঙ্গে ছিটমহল বিনিময়ের কারনে অবহেলিত জনগোষ্ঠীর জীবনমান উন্নত করার লক্ষ্যে ব্যাপক উন্নয়ন মুলক কর্মকাণ্ড ও কর্মসূচি বাস্তবায়ন করে যাচ্ছেন। আর সেই সুযোগ কাজে লাগিয়ে একশ্রেণির সুযোগসন্ধানী কুচক্রীমহল বিভিন্ন প্রলোভন দেখিয়ে লাখ লাখ টাকা হাতিয়ে নিচ্ছে।

পাটগ্রাম উপজেলাধীন আজিজপুর ছিটমহল এলাকায় বে-সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় স্হাপন করে চলছে নিয়োগ বানিজ্য। সেই প্রতারণায় সর্বশান্ত হচ্ছে শিক্ষিত বেকার যুবকরা।এমন অভিযোগের প্রেক্ষিতে সরেজমিনে গিয়ে দেকতে পাই-শ্রীরামপুর ইউনিয়নের আজিজপুর ছিটমহল এলাকায় কৃষি জমিতে গড়ে উঠা ২৩ নং ছিটমহল দ্বারিকামারী ভাষা সৈনিক শহীদ সফিক বে-সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়।যার নামমাত্র সাইনবোর্ডটিতে মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের স্বারক নং- ০৩.০৭৪.৩৮.০৪৮.০০.০০১.১০১৮.৩০.৯৯.২৩৯.৪৩ উল্লেখ রয়েছে।

অপর দিকে ২০১১ সালে গড়ে উঠা ২৩ নং খাস দারিকামারী সীটে কুমুর উদ্দিন মছিরনবাড়ী বে-সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়টির চলমান শিক্ষা কার্যক্রমে বেঘাত সৃষ্টি করে প্রতিহিংসা স্বরূপ একটি কুচক্রী মহল ২৩ নং ছিটমহল দ্বারিকামারি ভাষা সৈনিক শহীদ সফিক বে-সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়টি নির্মান করেন।বিদ্যালয়টি অপরিকল্পিত ভাবে ফসলী জমির উপর গড়ে তুলেছে। এতে উৎপাদিত আবাদি জমি নষ্ট করায় এলাকাবাসীর মাঝে ক্ষোভের সৃস্টি হয়েছে।বিদ্যালয়টিতে যাতায়াতের সুবিধা ও শিক্ষার্থী নেই,নেই জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ও গনপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ছবি এবং নেই স্বাধীন বাংলাদেশের লাল সবুজের জাতীয় পতাকা।বিদ্যালয়ের চার পাশে শুধুই সবুজ ধানক্ষেত ও কাদামাটি।

এলাকা বাসী মনে করেন এমন বিদ্যালয় নির্মান প্রতারণা ছাড়া কিছুই না।অপর দিকে বিদ্যালয়ের জমিদাতা মোঃ জাবেদ আলী চালাক ও কৌশলী হওয়ায় টাকার বিনিময়ে কিছু ধান্দাবাজ নামধারী সাংবাদিকের মাধ্যমে বিভিন্ন প্রত্রিকা ও অনলাইন নিউজপোর্টালে শিরোনামে একাধিক শিরোনামে পাটগ্রাম স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স এর সহকারী পরিদর্শক মোঃ মোসলেম উদ্দিনের বিরুদ্ধে দুই লাখ টাকা আত্মসাতের ভিত্তিহীন মিথ্যে বানোয়াট অভিযোগ তুলে সংবাদ পরিবেশন করে হয়রানি ও সম্মানহানি করার চেষ্টা করছেন বলে জানা যায়। এঘটনায় মোঃমোসলেম উদ্দিন কৌশলবাজ মোঃজবেদ আলীর বিরুদ্ধে অভিযোগ করে বলেন-জবেদ আলী আমার বিরুদ্ধে মিথ্যা ষড়যন্ত্র করছেন আমি তার এই ষড়যন্ত্রের তীব্রনিন্দা ও প্রতিবাদ জানাই।

এ ঘটনায় মোঃ জবেদ আালীর সাথে কথা হলে তিনি যুক্তিপূর্ণ কোন বক্তব্য উপস্থাপন করতে পারেননি।তবে এলাকার স্হানীয় অনেকে মোঃজবেদ আলীর বিদ্যালয় স্হাপন করে নিয়োগ বানিজ্য করছেন বলে অভিযোগ তুলে এবং তার ষড়যন্ত্রের প্রতিবাদ ও নিন্দা জানিয়ে কুমুর উদ্দিন মছিরন বাড়ী বে-সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের চলমান শিক্ষা কার্যক্রমের প্রশংসা করে বিদ্যালয়টির সফলতা কামনা করছেন।