কুড়িগ্রামে সেলাই প্রশিক্ষণ, কর্মসংস্থান ও নারীর ক্ষমতায়ন প্রকল্পের উদ্বোধন

লংকাবাংলা ফাউন্ডেশনের সামাজিক দায়বদ্ধতা কর্মসূচীর অংশ হিসেবে কুড়িগ্রামে “শিখা সেলাই প্রশিক্ষণ, কর্মসংস্থান এবং নারীর ক্ষমতায়ন প্রকল্প-২০১৯” এর উদ্বোধন করা হয়েছে। এই প্রকল্পের আওতায় কুড়িগ্রামের প্রত্যন্ত অঞ্চল থেকে আগত ৩০ জন পশ্চাৎপদ মহিলাকে ৩ মাস মেয়াদী সেলাই প্রশিক্ষণ, কর্মসংস্থানের সুযোগ এবং সেলাই মেশিন প্রদান করা হবে।
সোমবার উলিপুর পৌরসভা হলরুমে এ প্রকল্পের উদ্বোধন করেন লংকাবাংলা ফাইন্যান্স লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা জনাব খাজা শাহরিয়ার এ প্রকল্পটি লংকাবাংলা শিখা ফোরামের একটি উদ্যোগ এবং পরিকল্পনা। লংকাবাংলা শিখা ফোরাম এই সেলাই প্রশিক্ষণ প্রকল্পের মাধ্যমে স্বাবলম্বী নারী ও প্রগতিশীল সমাজ গঠনে আশাবাদী। প্রশিক্ষণ কার্যক্রম চলবে সপ্তাহে ৫ দিন এবং দৈনিক ৫ ঘন্টা কওে সর্বমোট ৩ মাস। প্রত্যেক মহিলা নগদ সহায়তা হিসেবে প্রতিদি ১০০ টাকা পাবেন দৈনন্দিন যাতায়াত ও আপ্যায়ণ ব্যয় নির্বাহ করার জন্য। প্রত্যেক সফল প্রশিক্ষণার্থী প্রশিক্ষণ কার্যক্রম শেষে একটি করে সেলাই মেশিন পাবেন।
সেলাই প্রশিক্ষণ প্রকল্পের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন প্রাক্কালে লংকাবাংলা ফাইন্যান্স লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা জনাব খাজা শাহরিয়ার অনগ্রসর নারীদের সেলাইয়ের উপর বিশেষ দক্ষতা অর্জন ও গার্মেন্টস সেক্টরে কাজ করার সুযোগ সৃষ্টি এবং স্বাবলম্বী হওয়ার মাধ্যমে নারীদেও ক্ষমতায়নের ওপর বিশেষ গুরত্ব আরোপ করেন।
উলিপুর পৌরসভার মেয়র তারিক আবুল আলা দক্ষ মহিলা কর্মশক্তি তৈরী এবং কর্মসংস্থানের সুযোগ সৃষ্টিতে সহযোগীতার হাত বাড়িয়ে দেয়ার জন্য লংকাবাংলা ফাউন্ডেশনের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন। কুড়িগ্রাম জেলায় বিভিন্ন সহযোগিতা অব্যাহত রাখার জন্যও তিনি লংকাবাংলাকে ধন্যবাদ জানান।

লংকাবাংলা প্রধান কার্যালয় থেকে লিগ্যাল বিভাগের প্রধান ও শিখা ফোরামের সদস্য সচিব উম্মে হাবিবা শারমিন, ফার্স্ট অ্যাসিস্ট্যান্ট ভাইস প্রেসিডেন্ট ও শিখা ফোরামের সসদ্য শারমীন সুলতানা এবং অল্টারনেটিভ ডেলিভারি চ্যানেলস (এডিসি) ও লংকাবাংলা ফাউন্ডেশনের প্রধান মো: জাহাংগীর হোসেন, উলিপুর পৌরসভার উচ্চপদস্থ কর্মকর্তাবৃন্দ এবং উলিপুরের গন্যমান্য ব্যক্তিবর্গ এই উদ্বোধন অনুষ্ঠানে অংশগ্রহণ করেন।