ফুলবাড়ী সীমান্তে বিজিবি ও বিএসএফের ব্যাটালিয়ন পর্যায়ের পতাকা বৈঠক

কুড়িগ্রামের ফুলবাড়ী সীমান্তে বিজিবি ও বিএসএফের কমান্ডিং অফিসার পর্যায়ের
পতাকা বৈঠক অনুষ্টিত হয়েছে। বুধবার সকাল সাড়ে ১০টায় উপজেলার সীমান্তবর্তী আন্তর্জাতিক ৯৩৭ এর ৮ নং সাব পিলারের নিকটস্থ চৌপথি-নন্দিরকুটি শিমুলবাড়ী জামে মসজিদ মাঠে ঘন্টাব্যাপী এ বৈঠকটি অনুষ্ঠিত হয়।

বৈঠকে বাংলাদেশে পক্ষে ৬ বিজিবি সদস্যের নেতৃত্ব দেন লালমনিরহাট ১৫ বিজিবি ব্যাটলিয়ানের অধিনায়ক লেঃ কর্ণেল মোঃ আনোয়ার-উল-আলম ও ভারতের পক্ষে ৬ বিএসএফ সদস্যের নেতৃত্ব দেন কোচবিহার ৩৮ বিএসএফ এর কমান্ডেন্ট রাজ ওয়ানত সিং।

বিজিবি সুত্র জানায়, উপজেলার সীমান্তবর্তী চৌপথি-নন্দিরকুটি শিমুলবাড়ী জামে মসজিদের দ্বিতল ভবনের নির্মাণ কাজ শুরু করলে বিএসএফ তাতে বাধা প্রদান করে। এরই প্রেক্ষিতে বুধবার পতাকা বৈঠকে দ্বিতল ভবনের নির্মান কাজ স্থগিত রেখে মসজিদটির সংস্কার কাজ  করার সিদ্ধান্ত হয়। এছাড়াও ভারতের আসাম রাজ্যের ১৯ লাখের বেশী

এন আর সি থেকে বাদ পড়া নাগরিককে কোনক্রমেই যাতে বাংলাদেশে পুশ ইন করা না হয় সে বিষয়ে বিস্তারিত আলোচনা হয়। বৈঠকে মাদক চোরাচালান প্রতিরোধে
দু’দেশের সীমান্তরক্ষী বাহিনীর টহল জোরদার রাখা এবং সীমান্তে সৌহার্দ্যপূর্ণ
সম্পর্ক বজায় রাখার বিষয়ে আলোচনা হয়েছে।

এ প্রসঙ্গে লালমনিরহাট ১৫ বিজিবি’র অধিনায়ক লেঃ কর্ণেল মোঃ আনোয়ার-উল-আলম জানান, বিএসএফর সাথে অত্যন্ত ফলপ্রসূ আলোচনা হয়েছে। তারা এন আর সি  থেকে বাদ পড়া নাগরিকদের বাংলাদেশে পুশ-ইন না করার ব্যাপারে একমত হয়েছে।