গোবিন্দগঞ্জে স্কুলছাত্রীর বুকে ছুরি দিয়ে আঘাত বখাটের শাস্তির দাবীতে মানববন্ধন।।

গোবিন্দগঞ্জে স্কুলছাত্রীর বুকে ছুরি মারার ঘটনায় বখাটে আশিক ও সহযোগীদের শাস্তির দাবীতে মানববন্ধন।।

গাইবান্ধার গোবিন্দগঞ্জের হরিরামপুর ইউনিয়নের রামপুরা দ্বি-মূখী উচ্চ বিদ্যালয়ের ৭ম শ্রেণির এক ছাত্রীকে হত্যার উদ্দেশ্যে ছুরিকাঘাত করে মারাত্মক আহত করার ঘটনায় বখাটে আশিক মিয়া ও তার সহযোগীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবীতে মঙ্গলবার (২৭ আগস্ট) রামপুরা দ্বিমূখী উচ্চ বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী, শিক্ষক ও অভিভাবেকরা মানববন্ধন ও বিক্ষোভ মিছিল করেছে।

মানববন্ধন চলাকালে বক্তব্য রাখেন- বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক শহিদুল ইসলাম সরকার, সিনিয়র সহকারী শিক্ষক আব্দুর রেজ্জাক মিয়া, সহকারী শিক্ষক আনোয়ারুল ইসলাম, রামপুরা সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক ওবায়দুর রহমান, সহকারী শিক্ষক ফারুকুল ইসলাম, মিশু আক্তার, বীর মুক্তিযোদ্ধা সাইদার রহমান ও বীর উত্তম বিদউল আলম সানরাইজ কিন্ডার গার্টেন স্কুলের পরিচালক গোলাম আজম রঞ্জু।

মানববন্ধনে বক্তাদের অভিযোগ স্কুলে আসা-যাওয়ার পথে প্রতিনিয়িত কুঞ্জ নাকাই গ্রামের বখাটে আশিক মিয়া ওই স্কুলছাত্রীকে প্রেমসহ নানা কু প্রস্তাব দিয়ে উত্ত্যক্ত করতো। এবিষয়টি ওই ছাত্রী বিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ ও অভিভাবকদের জানালে বখাটে আশিক ক্ষিপ্ত হয়ে গত রবিবার (২৫ আগস্ট) গভীর রাতে কৌশলে ওই ছাত্রীর শয়ন কক্ষে ছুরি দিয়ে বুকে আঘাত করে স্তন কেটে ফেলে। এসময় তার চিৎকারে এলাকার লোকজন এগিয়ে আসলে বখাটে আশিকসহ তার সঙ্গীরা পালিয়ে যায়।

পরে এলাকাবাসী ঐ ছাত্রীকে উদ্ধার করে গাইবান্ধা জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করালে ডাক্তাররা ঐ ছাত্রীর বুকে ২৮ টি সেলাই করে। বর্তমানে ঐ ছাত্রী এ হাসপাতালের জরুরি বিভাগে ২৬ নং ওয়ার্ডে চিকিৎসা নিচ্ছে।
এ ঘটনায় জড়িতদের দ্রুত গ্রেফতার পূর্বক বিচারের দাবী জানায় তারা।

এদিকে এ ঘটনায়ে ঐ ছাত্রীর বাবা বাদী হয়ে ৬ জনকে অভিযুক্ত করে গোবিন্দগঞ্জ থানায় মামলা করায় পুলিশ অভিযুক্ত ১ নং আসামি আশিককে আটক করেছে এবং ২ নং আসামী রফিকুলকে না পেয়ে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য রফিকুলের মা কে আটক করেছে।