গ্রেফতারের পর ‘বন্দুকযুদ্ধে’ রোহিঙ্গাসহ দুই মাদক ব্যবসায়ী নিহত

কক্সবাজারের টেকনাফে গ্রেফতারের পর পুলিশের সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ রোহিঙ্গাসহ দুই মাদক ব্যবসায়ী নিহত হয়েছে।

শনিবার (১২ অক্টোবর) ভোরে টেকনাফ সদর ইউনিয়নের পর্যটন বাজার সংলগ্ন পাহাড়ি এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

নিহতরা হলেন, টেকনাফ সদর ইউনিয়নের হাতিয়ার ঘোনা এলাকার আহাম্মদ হোসেন (৪৫), হ্নীলা ইউনিয়নের নয়াপাড়া রোহিঙ্গা ক্যাম্পের ডি ব্লকের আব্দুর রহমান (৪৬)। এ ঘটনায় পুলিশের তিন সদস্য আহত হয়েছেন বলে দাবি তাদের।

টেকনাফ মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) প্রদীপ কুমার দাশ বলেন, শুক্রবার গভীর রাতে থানা পুলিশের একটি দল অভিযান পরিচালনা করে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের তালিকাভুক্ত মাদক কারবারি ও ৬ মাদক মামলার ওয়ারেন্টভুক্ত আসামি আহমদ হোসেন এবং রোহিঙ্গা আব্দুর রহমানকে গ্রেফতার করে। পরে তাদের স্বীকারোক্তি মতে ইয়াবা ও অস্ত্র উদ্ধারের জন্য টেকনাফ সদর ইউনিয়নের পর্যটন বাজারের উত্তরে মালির পাহাড়ের দিকে পৌঁছামাত্র সন্ত্রাসীরা পুলিশকে লক্ষ্য করে এলোপাতাড়ি গুলি ছুড়তে থাকে। এ এসময় পুলিশও আত্মরক্ষার্থে পাল্টা গুলি চালায়।

এক পর্যায়ে অস্ত্রধারী ইয়াবা কারবারিরা পিঁছু হটলে ঘটনাস্থল থেকে গুলিবিদ্ধ অবস্থায় দু’জনকে উদ্ধার করে টেকনাফ উপজেলা হাসপাতালে নেওয়া হয়। সেখান প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে উন্নত চিকিৎসার জন্য কক্সবাজার নিয়ে যাওয়ার সময় তারা মারা যান।

ওসি আরও জানান, এ ঘটনায় টেকনাফ মডেল থানার উপ পরিদর্শক (এসআই) বাবুল, এএসআই অহিদ ও কনস্টেবল মালেকুল আহত হন। এ সময় ঘটনাস্থল থেকে দু’টি এলজি ৪ রাউন্ড তাজা কার্তুজ ও ৫ হাজার পিস ইয়াবা জব্দ করা হয়।

নিহত দু’জনের মরদেহ ময়না তদন্তের জন্য কক্সবাজার সদর হাসপাতাল মর্গে রাখা হয়েছে। এ ঘটনায় আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে বলেও জানান ওসি।