সানাউল্লাহ নূর সাগরের কবিতা স্যার

“#স্যার”
*******************
কি হলো আজি বঙ্গে?
ব্যামো ধরেছে সোনার অঙ্গে।
না ডাকিলে স্যার,
দেখায় পদের ধার।
নইলে যে তার,
কমিবে সম্মানের ভার।

মারিবে গায়ে লাথি,
ফাটিবে বুকের ছাতি।
করিবে মাথায় গুলি ,
না আসিলে স্যারের বুলি।
জবরদস্তিতে হলেও ভাই,
স্যার ডাকা চাই।
না করিলে তাহা,
হারাবে ঘটি বাটি যাহা।

তবে কি সোনার বঙ্গ,
ইতিহাস লয়ে করিছে রঙ্গ ?
ডাকিয়াছি মুজিব স্যার কভু,
জাতির জনক তবু?
ডাকিয়াছি মুজিব ভাই,
তিনি যে মাটির মানুষ তাই।

কহিনি তো ভাষানী স্যার ,
মাওলানার কি কমেছিলো ধার?
রেড মাওলানার তাপে,
একদা পশ্চিমা বিশ্ব কাপে।

নেতাজি সুভাষের ঘ্রাণ,
ভরেছিলো বাঙালির প্রাণ।
এত খেতাবে ভূষিত যিনি
তবুও কি স্যার নামে চিনি?

পাশ্চাত্যের বিদ্যাপিঠে গেলুম,
মাষ্টারকে স্যার ডাক দিলুম।
বঙ্গের স্যার ডেকে হাসিয়া,
পাশ্চাত্যে গেলুম ফাসিয়া।
কহিলেন মাষ্টার যেন তাহাকে,
স্যার নামে কেহ না ডাকে।
প্রতুত্তরে কহিলাম কেন?
শুধালেন বন্ধু ভাবি যেনো।
বন্ধু বলিয়া হাকিবে,
নাম ধরিয়া ডাকিবে।
দূরত্বটুকু ঘুচায়ে,
শিখিবে আমায় খুচায়ে।

মনের টানে স্যার ডাকে,
পাশ্চাত্যে সকলে হাকে।
হোক কুলি মজুর চাষা,
মুখে সাধু শুদ্ধ ভাষা।
জোর করিয়া নয় স্যার,
আপনা আপনি আসিবে তার।
মুখে ফুটিবে স্যারের বুলি,
রহিবে যখন সম্মানের ঝুলি।

আওড়িয়ে শত উদাহরন,
ঠেকাবো বঙ্গের মরণ।
থামিবে কলম সেইদিন,
সভ্য হবো মোরা যেইদিন।।।

লেখক : সানাউল্লাহ নূর সাগর
ব্রিস্টল ,ইংল্যান্ড,